ভিলেন থেকে হিরো হয়ে গিয়েছিলেন যেসব কমিক ক্যারেক্টাররা

0
40

বেশিরভাগ ভিলেনদের ইচ্ছা থাকে পুরো ওয়ার্ল্ড এ রাজত্ব করার , কমিক্স ওয়ার্ল্ড এ আমরা অনেক গ্রেট ভিলেন দেখেছি , যাদের মধ্যে কয়েকজন ভিলেন পরবর্তীতে সুপারহিরো হয়ে যায় । আজ তাদের নিয়েই লিখছি ।
.
➡ হার্লি কুইন – হার্লি কুইন জোকারের সাইড কিক হিসেবে থাকে, হার্লি জোকারের সব কাজে হেল্প করত, Injustics কমিক্সে সুপারম্যান যখন জোকারকে মেরে ফেলে তখন হার্লি কুইন ব্যাটমানের টিমে যোগ দেয় , হার্লি কুইন সুইসাইড স্কোয়াডের মেম্বার থাকে ।
.
➡ Galactus – 1966 সালে Fantastic four issue 48 এ গ্যালেক্টস একজন মেইন ভিলেন হিসেবে আসে , গ্যালেক্টস একজন প্ল্যানেট ধ্বংসকারী , পুরো গ্যালাক্সীতে ঘুরে প্ল্যানেট খুঁজে তার এনার্জি এবজর্ব করে প্ল্যানেট ধ্বংস করে , মারভেল এর সিক্রেট ওয়ার্স ইভেন্ট এর পর গ্যালেক্টস প্ল্যানেট ধ্বংস করা বন্ধ করে দেয় ,আগে যত প্ল্যানেট সে ধংস করেছিল সব নতুন করে বানাতে শুরু করে , এভাবে সে ভিলেন থেকে হিরো হয় ।
.
➡ Venom – ভেনমকে প্রথমে ভিলেন হিসেবে দেখানো হয় , পরে যখন ভেনমের ইন্ডিভিজুয়াল কমিক্স এ ভেনম ক্রাইম এর বিরুদ্ধে লড়াই করে , তবুও তখন সে এন্টি হিরো ছিল , ফ্ল্যাশ থম্পসন এক ওয়ারে নিজের পা দুটো হারালে গভর্মেন্ট তাকে ভেনমের সাথে বন্ড হওয়ার সুযোগ দেয় , ফ্ল্যাশ ভেনমের সাথে মার্জ হয়ে একজন হিরো হয়ে মানুষের হেল্প করে , এভাবে সে হয়ে যায় এজেন্ট ভেনম , মারভেল এর থান্ডারবোল্টস , গার্ডিয়ান্স অব দি গ্যালাক্সি টিমের মেম্বার হয় ।
.
➡ Deadshot – পৃথিবীর সবথেকে ভয়ঙ্কর assassins দের মধ্যে একজন Deadshot , ছোটবেলায় তার বাবা মা কে মেরে ফেলা হয়, তাদের প্রতিশোধ নেয়ার জন্য সে নিজেকে ট্রেইন করে , এভাবে সে Deadshot হয় , কমিক্সে সে ব্যাটমানের মেইন ভিলেনদের মধ্যে একজন , পরবর্তীতে সে সুইসাইড স্কোয়াডের মেম্বার হয় ।
.
➡ Hawkeye – 1964 সালে Tales of suspens কমিক্সে Hawkeye একজন ভিলেন হিসেবে আসে , ক্লিন্ট বার্টিন এর প্যারেন্টস গাড়ি দুর্ঘটনায় মারা যায় , তারপর সে নিজেকে ট্রেইন করে Hawkeye হিসেবে আসে। একদিন সে আয়রনম্যানকে দেখে মানুষদের হেল্প করতে , তখন তাকে তার হিংসা হয় , সে নিজের জন্য আলাদা কস্টিউম বানিয়ে মানুষের হেল্প করতে বের হয় , এক চোরকে আটকাতে গেলে লোকেরা তাকেই উল্টা চোর ভাবে , এরপর সে ব্ল্যাক উইডো র সাথে মিলে আয়রনম্যান এর বিরুদ্ধে লড়াই করে হেরে যায় ,ব্ল্যাক উইডো আহত হলে ক্লিন্ট বার্টিন এভেঞ্জার্স এর কাছে যায় , এরপর সে তাদের মেম্বার হয়ে যায় ।
.
➡ Lex Luthor – লেক্স লুথর অনেক বছর ধরে সুপারম্যানের ভিলেন ছিল , সে সুপারম্যানকে পৃথিবীর জন্য বিপদ মনে করে , ডিসির এক রিবুট নিউ 52 তে লেক্স লুথরকে নতুন রূপে দেখা যায় , সে Justice লীগের মেম্বার হয়ে যায় , injustic এ সুপারম্যান পুরোপুরি ভিলেন হয়ে গেলে সে সুপারম্যানের সাথে থাকে কিন্তু সে গোপনে সে ব্যাটমানের হয়ে কাজ করত ।
.
➡ Scarlet Witch & QQuicksilver – এরা দুজন ম্যাগনিটোর সন্তান , যার কারনে এদের মধ্যে মিউটান্ট এবিলিটি আছে , এরা দুজনেই ম্যাগনিটোর evil team এর মেম্বার চিল, ম্যাগনিটো ভালো হয়ে গেলে তারাও ওই টিম ছেড়ে দেয় , পরে এভেঞ্জার্স এ যোগ দেয় , MCU তে আমরা দেখেছি এই দুজন জমজ ভাই বোন evil থাকে , তারা আল্ট্রন এর হয়ে কাজ করে , কিন্ত যখন স্কারলেট আল্ট্রন এর প্ল্যান বুঝতে পারে তখন তারা দুজন এভেঞ্জার্স এ যোগ দেয় ।
.
➡ Red Hood – Jason Tod ব্যাটম্যান এর রবিন ছিল , সে ফ্যান্সদের তেমন পছন্দ ছিল না , কমিক্স রাইটার ভোট নেয় যে তাকে রাখবে নাকি মেরে ফেলবে , বেশিরভাগ ফ্যান্স ভোট দেয় তাকে মারার জন্য । এর পর jason Tod কে মেরে ফেলা হয় , কয়েকবছর পর Jason Tod নতুন রূপে আসে , এবার সে ব্যাটম্যান এর ভিলেন Red Hood নামে আসে , পরে সে ব্যাটমানের টিমে join করে ।
.
➡ Deadpool – ডেডপুল এখন একজন এন্টি হিরো , কিন্ত যখন তাকে প্রথম introduce করা হয় সে তখন ভিলেন ছিল , Weapon X প্রোগ্রাম এর জন্য অনেক কিছু এবিলিটি তার মধ্যে আসে , সে একজন killer assassins ছিল , পরে যখন তার একক কমিক্স বের হয় সেখানে সে শুধু যারা ক্রাইম করত তাদের মারত । ডেডপুল পরবর্তীতে এক্স ম্যান , এভেঞ্জার্স টিমের মেম্বার হয় ।
.
➡ Black Widow – Black Widow একজন রাশিয়ান Spy ছিল , তার ব্রেইন ওয়াশ করে তাকে এক assassins বানানো হয় , নাতাশাকে পাঠানো হয় টনি স্টার্ক কে মারার জন্য , সেখানে তার ক্লিন্ট বার্টিন এর সাথে দেখা হয় , কিছু সময় পরে টনি জানতে পারে ব্ল্যাক উইডো মারতে এসেছে , এই খবরটি সোভিয়েত গভর্মেন্ট জানতে পারলে তারা নাতাশাকে মারার চেষ্টা করে ,Hawkeye তাকে বাঁচায় , এরপর শিল্ড নাতাশাকে সোভিয়েত থেকে মুক্ত করে নিজেদের এজেন্ট বানায় ,এরপর সে এভেঞ্জার্স টিমে যোগ দেয় ।
.
.
এছাড়া আরো কিছু ভিলেন আছে যারা পরবর্তীতে হিরো হয়েছিল – Rogue , Two-Face, Namor , Magneto , Punisher .

লেখকঃMd Yeasin

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here