(খেলাধুলা) এই উত্তেজনা আবেগের বহিঃপ্রকাশ : সাকিব

0
18

সাকিব আল হাসান মাঠে থাকা মানেই আত্মবিশ্বাসের পারত আকাশচুম্বী। গতকাল শুক্রবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অঘোষিত সেমিফাইনালের আগে হয়তো দলকে উজ্জীবিত করতেই এই বাঁহাতি অলরাউন্ডারকে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। ফলও পেয়েছে লাল-সবুজের দল। শ্রীলঙ্কার মাটিতে তাদের হারিয়েই নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে উঠে গেছে টাইগাররা। জয়ের জন্য দল যে কতটা মুখিয়ে ছিল, সেটা তাদের শরীরী ভাষায় ছিল সুস্পষ্ট। তবে ম্যাচে যখন টানটান উত্তেজনা, ঠিক সেই মুহূর্তে ম্যাচ আম্পায়ারের বাজে সিদ্ধান্ত অধিনায়ক সাকিবের মেজাজ হারিয়ে দেয়। নো বলের সিদ্ধান্ত আম্পায়ারের নাকচ করে দেওয়া ক্ষেপিয়ে তোলে তাঁকে। উত্তেজিত সাকিব মাঠের বাউন্ডারি লাইনে চলে আসেন। এমন অনৈতিক সিদ্ধান্ত মেনে না নিয়ে রাগত ভঙ্গিতেই দলকে বেরিয়ে আসতে বলেন।

অবশ্য সবকিছু স্বাভাবিকভাবেই শেষ হয়, তবে দলনেতা হিসেবে নিজের মেজাজের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে অনুতাপ প্রকাশ করেছেন সাকিব। ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে সাকিব বলেন, ‘টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এর চেয়ে বেশি প্রত্যাশা করা ঠিক না। প্রতি মুহূর্তেই উত্তেজনা, আবেগ। মাঝে মাঝে আবেগ চড়ে বসে। তবে দলের অধিনায়ক হিসেবে সতর্ক থাকতে হবে। পরবর্তী সময়ে আমি আরো সতর্ক থাকব। মাঠে সব সময়ই আমরা শক্ত প্রতিযোগী। তবে বাইরে কিন্তু আমরা সবাই বন্ধু।’

এমন জয়ের মূল্যায়ন করতে গিয়ে শ্রীলঙ্কাকেই কৃতিত্ব দিয়েছেন সাকিব, ‘কৃতিত্ব দিতে গেলে শ্রীলঙ্কাকেই দিতে হয়। ওরা দ্রুত পাঁচ উইকেট হারিয়ে বসে খেই হারিয়ে ফেলেছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত আমরা স্নায়ুর চাপে খেই হারাইনি।’

স্নায়ুক্ষয়ী এই ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে দুই উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ। মাহমুদউল্লাহ ও তামিম ইকবালের দারুণ দুটি ইনিংসের ওপর ভর করে স্বাগতিকদের বিপক্ষে এই দারুণ জয় পায় বাংলাদেশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here