নারী ও ফেসবুক কবিতা

0
8

নারী ও ফেসবুক
– মোঃ আব্দুল্লাহ্ আল মামুন
নারী দেখিলেই তাহাদের লেগে যায় ভিড়।
সেটা হোক মাঠ, ঘাট বা নীড়।
নারী রুপসি, নারী উর্বশী।
নারী কন্যা, নারী অনন্যা।
নারী মা, মেয়ে, প্রেয়সী।
তাই বলে সবাই মিলে এক নারীকে বলতে হবে
ভালোবাসি।

গলায় তার দিতে হবে অপমানের ফাসি।
এটা কোন মানবতা।
তুমি যে নারীকে ফেসবুকে দেখো।
দেখো তুমি রাস্তার ধারে,
দেখো বাসে তোমার পাশে বসে আছে নারী।
সে কারো মা, বোন, স্ত্রী।

তাকে এমন করে তাকিয়ে দেখার কি পেলে?
তোমার মনে কেনো লাগাও না লাগাম?
কেনো পাগলের মতো তাদের পথে হও বাধা?
ফেসবুকে নারী দেখলেই লাইক মেরে।
একটা চাটুকারিতা মার্কা মন্তব্য করে।
তার কাছে সহানুভূতি আশা কর?
কেনো আশা কর সে তোমার সাথে
রাত ভর করবে বার্তা আদান প্রদান।
তার কি প্রিয় কেউ থাকতে নাই?
তার যার সাথে মন মিলে।
যে তার স্বামী, প্রেমী ।

যে তার মন প্রাণ।
তার সাথে করবে সে চিঠি আদান প্রদান।
তুমি কেনো এতো আশা করো?
কে বলেছে তোমাকে সস্তা লাইক দিতে?
লুচ্চা কবি তুমি।
চোরের মতো চুরি করো অপরের লেখা।
আর মেয়েদের সাথে করো নষ্টামি।
ওরে বেহায়া, চান কালা।

নারী দেখলেই জিবে আসে লালা।
তুমি যেমনি হও মন্ত্রী, এমপি পুলিশের শালা।
যতোই ভাব নাও,
পাঞ্জাবি পরিধান করে সাজো কবি।
মেরে তোমাকে বানিয়ে দিবো ছবি।
দেয়ালে তখন ঝুলবে তুমি।
জীবন্ত নয় ছবি হয়ে।

ধুতরা ফুলের মালা থাকবে ছবির গলাতে।
তুমি ভন্ড পারবেনা পালাতে।
ফেসবুকে, রাস্তায়, মেলাতে,
নারী দেখতেই ইচ্ছে করে নোংরা খেলায় মেতে উঠতে?
সে সুযোগ আর পাবে না তুমি।
ফেসবুকে যতই করো তাল বাহানা।
সেখানেও তুমি ক্ষমা পাবেনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here